ট্রেন্ডিং নিউজ

এবার লাইভ লোকেশন শেয়ারিং ফিচার নিয়ে এলো উবার!

পেপল এর দেশে না আসা নিয়ে স্যাটায়ার!

এ পর্যন্ত সবচেয়ে বেশী বিক্রি হওয়া ২০ টি মোবাইল হ্যান্ডসেট!

আপনার ঘরের নতুন অতিথির আগমন বার্তা জানাবার কিছু অভিনব উপায়!

এ্যাপল ঘোষণা করলো আইফোন টেন! যাতে নেই কোন হোম বাটন!

শুক্রবার ২৪ নভেম্বর, ২০১৭

কি ভাবে রাধঁবেন আখনি বিরিয়ানি

আখনি শব্দটি বিশেষ্য যার অর্থ রান্নার জন্য মশলা পানি দিয়ে সেদ্ধ করা । আখনি বিরিয়ানি তৈরিতে বিভিন্ন ধরনের মসলার ব্যবহার রয়েছে বিধায় একে আখনি নাম ডাকা হয় ।

চট্টগ্রামের কোনও আয়োজন মানেই আখনি নতুবা মেজবানি গরুর মাংস। এসব ছাড়া উৎসব হতেই পারে না। আপনি যদি চট্টগ্রামের মানুষ হয়ে থাকেন তাহলে সপ্তাহে একবার আখনি খাওয়া আপনার জন্য ডাল-ভাত। কিন্তু এর বাইরের লোকদের কি হবে? তাদের জন্য আজকে ঢাকা টনিকে আখনি বিরিয়ানী রেসিপি। একটু সময় লাগলেও অসাধারণ এই বিরিয়ানীটি এক বৈঠকে তিন প্লেট সাবাড় করা আপনার জন্য কোনও ব্যাপারই না।

আখনি সাধারণত মশলা দিয়ে একটি বিশেষ পানি তৈরির পদ্ধতির নাম। সেই পানি দিয়ে পোলাউ হবে এবং আলাদা করে রান্না করা মাংস মেশানো হবে তার সঙ্গে। এটিই আখনির বিশেষত্ব।ও আরেকটি কথা, আখনি কিন্তু সেদ্ধ চাল দিয়ে রান্না করতে হয়। ঝটপট জেনে নেই আখনি তৈরির প্রণালীঃ


উপকরণ-১: চিনিগুঁড়া চাল ২ কেজি, গরুর মাংস ৪ কেজি, পেঁয়াজ কুচি ২ কেজি, রসুনবাটা ২০০ গ্রাম, আদাবাটা ২০০ গ্রাম, সাদা সরিষা ৫০ গ্রাম, চিনাবাদাম ৫০ গ্রাম, নারকেল কুচি ২০০ গ্রাম, মরিচ গুঁড়া ৩ টেবিল চামচ, হলুদ গুঁড়া ২ টেবিল চামচ, গরমমসলা পরিমাণমতো, টমেটো ১ কেজি, কাঁচা মরিচ ১০-১২টা, তেল ১ কাপ, ঘি ১ কাপ, জিরা গুঁড়া ১ টেবিল চামচ, ধনে গুঁড়া ১ টেবিল চামচ, টকদই ২ কাপ, লবণ ও গরম পানি পরিমাণমতো।

উপকরণ-২: মুখ চেরা এলাচি ১০টি, দারুচিনি (২ ইঞ্চি) ৪ টুকরা, লবঙ্গ ১০টি, জায়ফল ১টি, জয়ত্রী ২ টেবিল চামচ, শাহি জিরা ২ চা চামচ, কেওড়া ২ টেবিল চামচ ও গোলাপজল ২ টেবিল চামচ।

প্রণালি: চাল ও মাংস ধুয়ে পানি ঝরিয়ে নিতে হবে। গরম পানি ছাড়া মাংসে ১ নম্বর উপকরণের মসলা, তেল ও ঘি মেখে চুলায় বসাতে হবে। মাঝারি আঁচে মাংস রান্না করতে হবে। মাঝেমধ্যে নেড়ে দিতে হবে। সেদ্ধ হলে চাল মাংসে ঢেলে দিয়ে পাঁচ মিনিট কষাতে হবে। এবার পরিমাণমতো গরম পানি দিতে হবে।

অন্য দিকে উপকরণ–২–এর মসলা তাওয়ায় ভেজে গুঁড়া করে নিতে হবে। চাল ও মাংসের পানি শুকিয়ে এলে গুঁড়া মসলা দিয়ে দমে বসাতে হবে। চাল ফুটে উঠলে কেওড়া ও গোলাপজল দিতে হবে। কিছুক্ষণ দমে দিয়ে নামিয়ে নিতে হবে। বড় পাত্রে আখনি বিরিয়ানি নিয়ে বেরেস্তা ছড়িয়ে পরিবেশন করতে হবে।

Comments

মন্তব্য করুন

এই বিভাগের অন্যান্য পোস্ট

%d bloggers like this: